নদীর সঙ্গে অস্তিত্ব জড়িত আমাদের

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশের নদী-নালা-খাল-বিল ও এর পানির সঙ্গে আমাদের অস্তিত্ব জড়িত। পানির উৎস যেভাবে দখল-দূষণ করা হচ্ছে তাতে আমাদের অস্তিত্ব বিপন্ন। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের নদী-পানি-জাতীয় স্বার্থ রক্ষা আন্দোলন’ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনে নদী-পানি-জাতীয় স্বার্থ রক্ষা আন্দোলনের পক্ষ থেকে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সংগঠনের সদস্য সচিব নঈম জাহাঙ্গীর। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বাসদ নেতা খালেকুজ্জামান, বজলুর রশীদ ফিরোজ, বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতা মোশারফ হোসেন নান্নু, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, পানি বিশেষজ্ঞ প্রকৌশলী ম. এনামুল হক প্রমুখ। অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, পানির সংগ্রাম আমাদের দীর্ঘ সংগ্রাম। এ সংগ্রাম অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। কেননা পানির সঙ্গে আমাদের অস্তিত্ব জড়িত। আমাদের দেশ মানুষের বসবাসের উপযোগী থাকবে কিনা তা নির্ভর করছে পানি সমস্যার সমাধান আমরা করতে পারব কি না তার ওপর। তিনি বলেন, নদীগুলোর সমস্যার পাশাপাশি আমাদের সমুদ্রের সমস্যাগুলোও চিহ্নিত করতে হবে। আমরা সমুদ্রকে উপেক্ষা করতে পারি না। সমুদ্রের নিচে ও উপরে যে সম্পদ আছে আমাদের সেদিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে। সমুদ্রের ওপর আমাদের যে অধিকার রয়েছে, সেই অধিকারকেও আমাদের রক্ষা করতে হবে। তিনি আরও বলেন, নদীগুলোর সমস্যা শুধু আমাদের সমস্যা নয়। এ সমস্যা শুধু ভারত-বাংলাদেশের সমস্যা নয়। নদীগুলো আন্তর্জাতিক নদী। ভারতের সঙ্গে আমাদের নদীগুলোর সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক জনমত আমাদের পক্ষে আনতে হবে। সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশের নদী-নালা-খাল-বিল রক্ষার আন্দোলন তাদেরই করতে হবে, যারা দেশপ্রেমিক, পুঁজিবাদবিরোধী, সমাজতান্ত্রিক, সর্বোপরি দেশের জনগণকেই এ আন্দোলন করতে হবে। কারণ পুঁজিবাদী ও জাতীয়তাবাদীদের মধ্য থেকে দেশপ্রেম ক্রমাগত কমে যাচ্ছে। জাতীয়তাবাদীরা মনে করে এই দেশের কোনো ভবিষ্যৎ নেই। তাই তারা তাদের টাকা-পয়সা, ধন-সম্পদ ও সন্তানসহ সবকিছুই দেশের বাইরে পাচার করছে। যে কোনো বিপদে তারা দেশ ছেড়ে চলে যেতে পারে। সুতরাং, এ দেশ জনগণের, জনগণের অধিকার জনগণকেই রক্ষা করতে হবে।